loading...
Breaking News
Home / খেলা / ‘আমরা বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলতে পারি’
‘আমরা বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলতে পারি’

‘আমরা বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলতে পারি’

গতকাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের অন্যরকম জয় এখনও আলোচনার বিষয় ক্রিকেট দুনিয়ায়। গত ক’মাসে বাংলাদেশ ক্রিকেটের যে সম্মানহানি হয়েছে টানা হারে, সেটা অনেকটা উদ্ধার এক ম্যাচেই! ২১৪ রান তাড়া করতে নেমে ৫ উইকেটে জয়। কীভাবে সম্ভব হলো?

ওপেনার তামিম ইকবালের মতে, আত্মবিশ্বাস, দলগত প্রচেষ্টা এবং পুরো ২০ ওভার সমান তালে ব্যাট করে যাওয়ার কারণেই সম্ভব হয়েছে। সাব্বির বাদে কাল সবাই রান করেছেন। পরিস্থিতি বুঝে হাত খুলে পিটিয়েছেন। লিটন যখন ব্যাট করছিলেন মনে হচ্ছিলো ক্রিস গেইল ব্যাট করছেন। মুশফিক যখন একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকাচ্ছিলেন, মনে হচ্ছিলো মহেন্দ্র সিং ধোনি ব্যাট করছেন।

কিন্তু না, কালকের ব্যাটিং শোকে বাংলাদেশি ব্র্যান্ড হিসেবেই দেখছেন। ক্রিস গেইল বা ধোনির ব্যাটিংয়ের সঙ্গে তুলনায় যেতে চাচ্ছেন না তামিম। বলেছেন, ‘দেখেন, আমাদের হয়তো বড় পাওয়ার হিটার নেই, তবে আমরা বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলতে পারি। আমাদের ধোনি নেই যে সাতে নেমে ম্যাচ শেষ করে আসবে। আমাদের ক্রিস গেইল নেই যে প্রথম বল থেকেই ম্যাচ কেড়ে নিতে পারে। তবে আমাদের স্মার্ট ক্রিকেটাররা আছে।’

‘দেখেন, আমরা ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অনুসরণ করতে পারি না। তাদের খেলোয়াড়দের ধরন একরকম, আমাদের আরেক রকম। এই জয়টা আমাদের অনেক আত্মবিশ্বাস দেবে। আমাদের কখনো ২০০ রানের ওপরে তাড়া করার রেকর্ড ছিল না। এখন থেকে খেলোয়াড়েরা অন্তত বিশ্বাস করবে, ১৮০ বা ২০০ তাড়া করতে পারি। সব সময়ই চার-ছক্কা মারতে হবে, তা নয়। ইনিংসের মাঝের ওভারগুলো অনেক সিঙ্গেল নেওয়া যায়। আর বাউন্ডারি তো আসবেই।’

ব্যাঙ্গালুরুতে ৩ বলে ২ রান নিতে পারেননি ভারতের বিপক্ষে। হয়েছিলেন সমালোচিত। এবার সেই মুশফিকই এনে দিলেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসের চতুর্থ বড় জয়টি। সবাইকে এবার মুশফিককে প্রশংসায় ভাসাতে বললেন তামিম, ‘যে ব্যাটসম্যান বেঙ্গালুরুতে ভুল করেছিল, সে সেটি করেনি। একজন ব্যাটসম্যানের শেখার অনেক কিছু থাকে। এটা ভালো দিক, খারাপ ম্যাচ থেকে শিখে একটা ম্যাচে আমরা অন্তত কাজে লাগিয়েছি। সে সময় মুশফিককে যেভাবে সমালোচনা করা হয়েছিল, আজ একইভাবে তাকে প্রশংসা করা উচিত।

loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*